Logo
নোটিশ :
স্বাগতম একুশের আলো .....

কলাপাড়ায় ধর্ষনের নিউজ করায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকি

কলাপাড়ায় ধর্ষনের নিউজ করায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকি

অনলাইন ডেস্কঃ  তুই আমার বিরুদ্ধে নিউজ করছো, তোর হাত পা কাইটা ফালামু। উপরে আমার লোকজন আছে। পোলাপানে তোরে জাগাইয়া নিয়া যাইবো। তুই আমার এলাকায় ঢুকছো ক্যা। কেউ তোরে বাচাতে পারবেনা।  শনিবার দুপুরে কলাপাড়া উপজেলা প্রানীসম্পদ কার্যালয়ের সামনে থেকে সংবাদ সংগ্রহ শেষে ফেরার পথে মাইটিভির কলাপাড়া প্রতিনিধি সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম রয়েলকে এমন হুমকি প্রদান করে কুখ্যাত চোরা রিয়াজ। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক রয়েলের উপর চরাও হয়। পরে দীপ্ত টেলিভিশনের পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক ইমরান ও একাত্তর টিভির কলাপাড়া প্রতিনিধি মিলন রাজু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

এ ঘটনায় সাংবাদিক রয়েল কলাপাড়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছেন। এদিকে এ ঘটনার পরপর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কলাপাড়া উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা।

ডায়েররীতে রয়েল উল্লেখ করেন, প্রানীসম্পদ প্রদর্শনী মেলার সংবাদ সংগ্রহ শেষে চোরা রিয়াজ সাংবাদিক রয়েলকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন।

তার বিরুদ্ধে কেন নিউজ করা হয়েছে সে বিষয় জানতে চেয়ে এক পর্যায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন রিয়াজ। পরে সাংবাদিক ইমরান ও মিলন রাজু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, চুরি, ধর্ষন ও মাদকসহ বেশ কয়েকটি মামলায় চোরা রিয়াজ একাধিকবার থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। এসব কর্মকান্ডে এলাকাবাসী রিতীমত অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে সাংবাদিক রয়েল বলেন, চোরা রিয়াজকে ধর্ষনের মামলায় আটকের নিউজ করায় সে বেশ কয়েকদিন ধরে আমার সাথে অশুভ আচার আচরন শুরু করে। প্রানীসম্পদ কার্যালয়ের সামনে সংবাদ সংগ্রহ শেষে ফেরার পথে রিয়াজ আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে ও প্রাননাশের হুমকি দেয়। কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি হুমায়ুন কবির বলেন, এ ঘটনা আসলেই উদ্বেগ জনক। আমরা সাংবাদিক মহল এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। অবিলম্বে সাংবাদিক রয়েলকে হুমকিদাতা রিয়াজের গ্রেফতারের দাবি জানাই।

কলাপাড়া থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা এসআই শওকত হোসেন জানান, রিয়াজের বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *