ঢাকা   ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । বৃহস্পতিবার । সকাল ৬:৫৩

সাফল্যকে কাঁধে নিয়ে পটুয়াখালীতে সাংস্কৃতিক সংগঠন সুন্দরম’র পথ চলার দুই যুগ

 রাকিবুল ইসলাম তনু, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালী অন্যতম প্রধান সাংস্কৃতিক সংগঠন সুন্দরম পরিবার এর ২৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে গতকাল। গতকাল ১১ নভেম্বর,২০২০ ইং সুন্দরমের ২৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।এ উপলক্ষে গতকাল সন্ধ্যা ৭.০০ ঘটিকায় সুন্দরম কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেন সুন্দরমের সদস্যরা।কেক কাঁটা,আলোচনা সভার মাধ্যমে ঘরোয়া ভাবে দিবসটি পালন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে সুন্দরমের সভাপতি প্রফেসর এম. নুরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদ প্রিন্স এর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন পটুয়া খেলাঘর আসরের সভাপতি প্রফেসর একে এম শহীদুল ইসলাম,পটুয়াখালী আবৃত্তি মঞ্চের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মানস কান্তি দত্ত,জেলা বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সভাপতি ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. উজ্জ্বল বোস,সুন্দরমের কার্যনির্বাহী সদস্য তরিকুল ইসলাম রুবেল,নীনা আফরীন,মিঠুন পাল বান্টি,সুন্দরমের দপ্তর সম্পাদক সুজয় চক্রবর্তী, সম্পাদক মরিয়ম মুক্তা,সদস্য শোভন সাহা,মৃদুল চক্রবর্তী,স্বপ্নীল দাস প্রমুখ। বক্তারা বলেন,১৯৯৬ সালের ১১ নভেম্বর পটুয়াখালী সরকারী কলেজের কিছু তরুন সাংস্কৃতিক কর্মীদের হাত ধরে পথচলা শুরু করেছিলো সুন্দরম।সৈয়দ শামসুল হকের ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’ এর মতো কালজয়ী নাটক ছিলো তাদের প্রথম প্রযোজনা।কালজয়ী এই নাটকটি মঞ্চস্থ করে অসীম সাহস ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছিলো সেদিন সুন্দরম।খুব দ্রুত পরিচিতি লাভ করে সংগঠনটি।খুব দ্রুতই পটুয়াখালী থেকে বরিশাল, বরিশাল থেকে ঢাকা এভাবে সারা বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক কর্মী সংগঠকদের কাছে পরিচিত একটি নাম হয়ে দাঁড়ায় সুন্দরম।সুন্দরম এখন বাংলাদেশের গন্ডি পেরিয়ে বহির্বিশ্বেও একটি পরিচিত নাম। পটুয়াখালীতে থিয়েটার চর্চাকে এতদূর নিয়ে আসার পেছনে সুন্দরমের ভুমিকা অতুলনীয়। ২০১৭ সালে সুন্দরমের ২০ বছর পূর্তি উৎসব পালন করা হয় জমকালো ভাবে।৫ দিনব্যাপী সুন্দরমের ২০ বছর পূর্তি উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশবরেণ্য অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম। আগামী বছর সুন্দরমে ২৫ বছর পূর্তি উৎসব আরো জমকালো ভাবে পালন করার আশ্বাস দিয়েছেন সুন্দরম কতৃপক্ষ।

%d bloggers like this: