ঢাকা   ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । সোমবার । সকাল ৭:৫৮

ভোলায় পরকীয়ার জেরে যুবককে খুন, যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত নারী গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্কঃ ভোলার চরফ্যাশন এলাকা থেকে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত রোজিনা আক্তার (৩০) নামে এক পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩। রোববার (৯ অক্টোবর) ভোরে জেলার দক্ষিণ আইচা চরফ্যাশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার (৯ অক্টোবর) র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে দয়াজ মিয়া নামে একজনের সঙ্গে রোজিনার বিয়ে হয়। তাদের বাড়িতে সুমন নামের এক ছেলে রাজমিস্ত্রীর কাজ করতেন। ওই সময় সুমনের সঙ্গে রোজিনার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি পরিবারের লোকজন জানতে পারায় কলহ সৃষ্টি হয়।

এরই জেরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে রোজিনা, রোজিনার স্বামী ও তার ভাইয়েরা মিলে সুমনকে হত্যা করেন। ওই ঘটনায় দয়াজ মিয়ার ৪ ভাই ও রোজিনাসহ তার পরিবারের ১২ জনের বিরুদ্ধে সিলেট জেলার জালালাবাদ থানায় একটি হত্যা মামলা হয়।

উক্ত মামলায় রোজিনা ছাড়া সব আসামি আত্মসমর্পণ করেন। তারা সবাই জামিনে রয়েছেন। কিন্তু রোজিনা ঘটনার পর পরই পালিয়ে যান।র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক বলেন, ২০১৮ সালে আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। ঘটনার পর থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তিনি রাজধানীতে আত্মগোপনে ছিলেন। এরই মধ্যে হেলাল উদ্দিন নামের আরেক ব্যক্তির সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১২ সালে হেলাল উদ্দিনকে বিয়ে করে চরফ্যাশন এলাকায় পলাতক জীবনযাপন শুরু করেন।

তিনি বলেন, রোজিনা হেলালকে নিয়ে কিছুদিন রাজধানীর মিরপুরেও বসবাস করেন। পরে চট্টগ্রামের বন্দরটিলা এবং এরপর চরফ্যাশন এলাকায় চলে যান।

হেলাল মুদি দোকান দেন। এভাবেই তারা আত্মগোপনে থাকেন। তাদের ৭ বছর বয়সী একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে। গ্রেফতারের পর রোজিনাকে জালালাবাদ থানায় হস্তান্তরের বিয়ষটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

%d bloggers like this: