ঢাকা   ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । শনিবার । সকাল ১১:১৬

বরিশালে সংবাদকর্মীকে কুপিয়ে জখম!

অনলাইন ডেস্কঃ  জমি – জমা বিরোধের জের ধরে বরিশালে এক সংবাদকর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। গতকাল সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে বরিশাল নগরীর ২৬ নং ওয়ার্ডস্থ হরিনাফুলিয়া নতুন হাট নামক এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। আহত সংবাদকর্মী এইচ. এম মাছুম(২৪) হরিনাফুলিয়া এলাকার মোঃ শাহজাহান হাওলাদের ছেলে। তিনি বর্তমানে বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক আমাদের বরিশাল পত্রিকায় কর্মরত রয়েছেন।

ভুক্তভুগী মাছুম জানান, হরিনাফুলিয়া এলাকায় নতুন হাট বাজার সংলগ্ন আমার দাদার ওয়ারিশ সুত্রে জমির মালিক আমার বাবা শাহজাহান হাওলাদার, ফুফু সাজেদা আক্তার ও দাদী আয়েশা বেগম’র কাছ থেকে ২.৩৭ শতাংশ জমি দীর্ঘ পাঁচ বছর পুর্বে আমি ক্রয় করি৷ উক্ত জমি এলাকার স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনী আলমের ছেলে জুয়েল(৩০), সোহেল (২৫), সোহাগ ও মৃত করম আলীর ছেলে আলম ও সেন্টু দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে দখলের পায়তারা চালাচ্ছিল।

এ নিয়ে সন্ত্রাসী ভুমিদস্যু বাহীনি আমার ক্রয়কৃত জমি দখলের অসৎ উদ্দেশ্য নানান ভাবে আমাকে ও আমার বাবা শাহজাহান হাওলাদারকে প্রতিনিয়ত প্রান-নাশের হুমকি প্রদান করতে থাকে। একপর্যায়ে তারা পেশি শক্তির বলে আমার জমিটি দখল করে নিলে ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবির হাওলাদার’র কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে সন্ত্রাসীরা আমার অনুপস্থিতিতে আমার বাবা শাহজাহান হাওলাদারকে পথরোধ করে লাঠিসোঁটা, দেশীয় অস্ত্র প্রদর্শন পুর্বক হামলার প্রাক্কালে স্থানীয় জনসাধারণের বাধার সম্মুখীন হলে গালি-গালাজ, ও প্রান-নাশের হুমকি প্রদান করে সন্ত্রাসীরা স্থান পরিত্যাগ করে। মাছুম আরও জানান, সন্ত্রাসীদের এ কর্মকান্ড পুনরায় আমারা কাউন্সিলরকে অবহিত করলে কাউন্সিলর শালিশ ডাকলে সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক আমার বাবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে পার পেয়ে যায়। তবে মুল বিষয়টি অর্থাৎ আমার ক্রয়কৃত জমি সন্ত্রাসী কর্তৃক দখলের সমাধান’র জন্য একাধিকবার কাউন্সিলর কর্তৃক শালিশ ডাকা সত্ত্বেও আলম’র ছলচাতুরীতে তার বিচারকার্য পন্ড হয়। তাই বিসয়টি নাটকের কাছে হেরে গিয়ে দিগন্তহীন হয়ে পরে। আমরা জিম্মি হয়ে যাই সন্ত্রাসী আলম বাহিনীর কাছে। মাছুম জানান, আমার জমির উপরে জীবিকা নির্বাহের জন্য নিজস্ব একটি দোকান রয়েছে। ঐ জমিও দখল’র উদ্দ্যেশ্যে রাতের আধারে সন্ত্রাসী আলম বাহিনী তা ভাঙ্গচুর করে।

এ বিসয়টিও কাউন্সিলরকে অবহিত করলে তিনি দোকানটি পুন-নির্মান’র অনুমতি দিলে বাধ সাধে সন্ত্রাসী আলম বাহীনি ও দোকান’র সামনে গাছ লাগিয়ে দোকানটি ঠিক করতে প্রতিবন্ধকতা সৃস্টি করে ও আমি কিংবা আমার বাবা শাহজাহান দোকান’র সামনে গেলে প্রান-নাশের হুমকি প্রদান করে।

মাছুম জানান , গতকাল আমি ও আমার বাবা শাহজাহান হাওলাদার মিস্ত্রিদের নিয়ে দোকানটি ঠিক করতে গেলে আতর্কিত হামলা চালায় সন্ত্রাসী আলম বাহীনি। এ সময় আলম, জুয়েল, সোহেল, সোহাগ, সেন্টু আমাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে ও আমার বাবাকে মারধর করে। পাশাপাশি আমাকে হত্যার উদ্দ্যেশ্যে কুপিয়ে জখম করে৷ বর্তমানে আহত মাছুম বরিশাল শেবাচিম’র ৫ম তলায় সার্জারিতে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের’র প্রস্ততি চলছে বলে জানান ভুক্তভুগী মাছুম।

%d bloggers like this: