ঢাকা   ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । বৃহস্পতিবার । বিকাল ৫:৫৭

বরিশালে শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ ও কারখানা চালুর দাবিতে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে সোনরগাঁও টেক্সটাইল শ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ।
সোমবার বেলা ১১টায় নগরীর রূপাতলী সোনগারগাঁও টেক্সইল মিলের সামনে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে কারখানার কয়েকশ’ নারী ও পুরুষ শ্রমিকরা।
প্রায় ঘন্টাব্যাপী অবরোধের কারনে সড়কের দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে চরম দূর্ভোগে পরে ঢাকা-বরিশাল সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের শত শত যাত্রী।
খবর পেয়ে বেলা পৌনে ১১টার দিকে কোতয়ালি মডেল থানার ইনচার্জ নুুরুল ইসলামের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকরা।
তবে চলতি নভেম্বর মাসের মধ্যে মালিক পক্ষ বকেয়া বেতন পরিশোধ ও কারখানা চালু করতে ব্যর্থ হলে আগামী ১ ডিসেম্বর পুনরায় লাগাতার সড়ক অবরোধের ঘোষনা দেয় শ্রমিকরা।
সোনারগাঁও টেক্সটাইল শ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুল হক এর সভাপতিত্বে সড়ক অবরোধ কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি গাজী মো. বেলাল হোসেন, বাসদ বরিশাল জেলা শাখার আহবায়ক ইমরান হাবিব রুমান, সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তী, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট একে আজাদ, ইমারত নির্মান শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি এম এ জলিল।
এসময় বক্তারা বলেন, করোনার কারন দেখিয়ে দীর্ঘ প্রায় ৮ মাস যাবৎ সোনারগাঁও টেক্সটাইল বন্ধ রেখেছে মালিকপক্ষ। এই সময় তাদের বেতন ভাতাও বন্ধ রাখা হয়েছে। যার ফলে কারখানার ৭ শতাধিক শ্রমিক-কর্মচারী তাদের পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই অবস্থায় তারা এর আগে বেশ কয়েকবার আন্দোলন করলেও কর্তৃপক্ষ কোন নজর দেয়নি। তাই আজ (সোমবার) অবরোধ করতে বাধ্য হয়েছেন। এরপরও তাদের দাবী না মানা হলে ভবিষ্যতে আরো কঠোর কর্মসূচী দেয়া হবে বলে হুমকি দেন তারা।
কোতয়ালী মডেল থানার ইনচার্জ নুুরুল ইসলাম জানান, সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের মালিক পক্ষের সাথে কথা হয়েছে। তারা চলতি মাসের মধ্যে কারখানার দুটি ইউনিট চালু করবে। পর্যায়ক্রমে বাকিগুলো চালু করা হবে।
এছাড়াও শ্রমিকদের বেতনের বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এমন আশ্বাসের ভিত্তিতে শ্রমিকরা তাদের আন্দোলন প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

%d bloggers like this: