ঢাকা   ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । বৃহস্পতিবার । রাত ২:৪৯

বরিশালে শেবাচিমে ট্রলিম্যানকে ইন্টার্ন চিকিৎসকের মারধর, নেয়া হয়নি ব্যবস্থা!

অনলাইন ডেস্কঃ  বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়(শেবাচিম) হাসপাতালের মো. জালাল তালুকদারকে মারধর ও দাড়ি ধরে টানা-হেঁচরার ঘটনায় কোন বিচার না পাওয়ায় ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে চতুর্থ শ্রেণী সরকারী কর্মচারী সমিতি। গতকাল সকাল ১০টায় হাসপাতালে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল শেষে সমিতির নেতৃবৃন্দ এ কর্মসূচীর ঘোষনা দেয়। এসময় সমিতির সাধারন সম্পাদক মো. সাহেব আলী বলেন,গত সোমবার বিকেলে এক মুমুর্ষু রোগীকে ট্রলিতে বহন করে লিফটে যাচ্ছিলেন জালাল। এমন সময় শিক্ষানবীশ চিকিৎসক মো. আসিফের সঙ্গে ট্রলিম্যান জালালের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায় ট্রলিম্যান জালালকে কিল-গুষি ও লাথি মেরে ফ্লোরে ফেলে দেয়। এমনকি বৃদ্ধ ট্রলিম্যান জালালের দাড়ি ধরে টানা-হেঁচরা করে শিক্ষানবীশ চিকিৎসক মো. আসিফ। এ ঘটনায় হাসপাতাল পরিচালকের নিকট সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানায় কর্মচারী সমিতি। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এতে কর্নপাত করেননি।’ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযুক্ত ইন্টার্ন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপও নেয়া হয়নি বলে জানা যায়। এছাড়াও নেতৃবৃন্দ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান,শেবাচিম হাসপাতালে পূর্বেও ধারাবহিকভাবে মারধরের শিকার হয় মো. দিদারুল,নুরুল ইসলাম ও ব্লাড ব্যাংকে কর্মরত সোহরাব হোসেন। এদিকে সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন বলেন,অভিযুক্ত শিক্ষানবীশ চিকিৎসক মো. আসিফের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা না করলে আমরা কঠোর আন্দোলনে যাবো। এমনকি বিষয়টির সুরাহা নাহলে আজ দুপুর ১২টার পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতী পালন করা হবে।

%d bloggers like this: