ঢাকা   ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । সোমবার । বিকাল ৩:৩৯

নিয়ন্ত্রনহীন বরিশালের নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল!

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশাল নগরীর কেন্দ্রীয় নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালে কোন ভাবেই শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা সম্বব হচ্ছেনা। যতই দিন যাচ্ছে ততই নিয়ন্ত্রন হীন হয়ে যাচ্ছে সেখানকার বাস গুলো। অভিযোগ রয়েছে বরিশাল জেলা বাস মালিক গ্রুপের আওতাধীন বাস গুলোর অধিকাংশই নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালে পার্কিং না করে মূল সড়ক ও ফোরলেন সড়ক দখল করে রাখা হচ্ছে। সরেজমিনে গিয়েও এর সত্যতা পাওয়া গেছে। যার ফলে একদিকে যেমন ট্রাফিক আইন অমান্য হচ্ছে। অপরদিকে সড়কের পাশেই অবস্থিত বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, নির্বাচন কমিশন বরিশাল বিভাগীয় অফিস, ও বরিশাল বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিস গুলোর সৌন্দর্য হারাচ্ছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে দিনে রাতে সমানে এই বাস গুলো সড়ক দখল করে পার্কিং করা। অনেক সময় এভাবে বাস রাখায় তীব্র যানযটের সৃস্টি হয়ে থাকে। অভিযোগ রয়েছে জেলা বাস মালিক গ্রুপের বাস গুলো সড়কের মাঝে দিনে রাতে সমান ভাবে থাকা ও যত্রতত্র পার্কিং করা থাকলেও তাদের পালিত সেচ্ছাসেবক লাঠিয়ালরা বাস নিয়ন্ত্রন করতে ব্যার্থ হলেও রাস্তার পাশে যাত্রী উঠানোর সময় আলফা, মাহিন্দ্রা গুলোর উপর অত্যাচার চালানো হয়। সাধারন আলফা চালকরা জানিয়েছেন, আমরা নির্দিষ্ট কোন যায়গা থেকেই যাত্রী উঠাতে কিংবা নামাতে পারিনা। তাহলেই জেলা বাস মালিক গ্রুপের নিযুক্ত নিয়ন্ত্রন কারী নামের লাঠিয়াল বাহীনি আমাদের মত সাধারন আলফা চালকদের উপর অতকৃত হামলা চালায়। আমরা প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠ বিচার চাই। এদিকে বাস গুলো যত্রতত্র অবৈধ পার্কি ও ফোর লেন দখল করে বাস রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে বরিশাল জেলা বাস মালিক গ্রুপের যুগ্ন সাধারন সম্পদক- কিশোর কুমার দে অভিযোগ স্বিকার করে বলেন, আমাদের জায়গা স্বল্পতার কারনে আমাদের রাস্তার মাঝে পার্কিং করতে হয়। তবে ফোর লেনের রাস্তার উপর কেন বাস রাখা হয় ? জানতে চাইলে তিনি বলেন আমরা বরিশাল ডিসি ট্রাফিকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিয়েছি। এ বিষয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মো: জাকির হোসেনের ফোন ব্যাস্ত পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্বব হয়নি।

%d bloggers like this: