ঢাকা   ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । সোমবার । সকাল ৮:৩২

তারেক রহমান বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী রাজনীতির একমাত্র কান্ডারী-এ্যাড.মো: মহসিন মন্টু

অনলাইন ডেস্কঃ গত ২০ নভেম্বর ছিল বি.এন.পি-র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারর্পসন তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন।সাড়া দেশে বি.এন.পি ও অঙ্গ দল এবং সহযোগী সংগঠন এ দিবসটি উদযাপন করেন।তার জন্মদিন উপলক্ষ্যে বরিশাল জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি ও বরিশাল মহানগর বি.এন.পি-র সহ সভাপতি এ্যাড.মোঃমহসিন মন্টু বলেন,সমাজ পরিবর্তনের সংগ্রামে রয়েছে অনেক চড়াই-উৎরাই।কখনও সংগ্রাম সফলতার মুখ দেখে আবার কখনওবা সংগ্রমের নেতৃত্ব দিতে গিয়ে নেতাকে অপশক্তির রোষানলে পড়তে হয়।বি.এন.পি-র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তরেক রহমানের নেতৃত্বের আরেকটি গুরুত্বপূর্ন দিক হলো,তিনি বিপদে সাহস না হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য ধৈর্যা ধারন করে নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া।তাঁর রাজনৈতিক জিবনে পথ চলা নিয়ত সরল রৈখিক হয়নি।২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারী তরিখে দেশে তত্ত্ববধায়ক সরকারের আড়ালে যে সেনা সরকার এসেছিল তারা বি.এন.পি-কে নিশ্চিহ্ন করতে সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের বরিুদ্ধে যৌথ বাহিনী এবং ট্যাস্কফোর্সের নামে হামলা-মামলা,জুলুম ও নির্যাতন চালায়।দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে নিক্ষেভ করে। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে,এই নির্যাতন ও জুলুমের শিকার নেতা-কর্মীদের মধ্যে তারেক রহমানের ওপর চালানো নির্যাতনের মাত্রা ও ধরন ছিল আলাদা।৭মার্চ২০০৭ তারিখে গ্রপ্তারের পর তার ওপর নেমে আসে পৈচাশিক নির্যাতন।এই আক্রমন তার প্রান কেড়ে নেওয়ার জন্যই করা হয়েছিল।১১ সেপ্টেম্বর ২০০৮ তারিখে তিনি চিকিৎসার জন্য বিলেতে গমন করেন।জননেতা জনাব তারেক রহমান বিদেশে অবস্হান করেও প্রয়োজনমত শাসকদলের মিথ্যাচার,কুশাসন,গুন,খুম,রাহাজানি,অন্যায়,অত্যাচার,অনাচারের বিরুদ্ধে সোচ্ছার ভূমিকা নিয়ে থাকেন তিনি।শাসকদল তাঁর নামে বহু মিথ্য মামলা দিয়াছে।বাংলাদেশে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার,আইনের শাসন ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত হলে সব মিথ্যা মামলাতেই তিনি খালাশ পাবেন ইহাই তাঁর ৫৬ তম জন্মদিনে দেশবাসীর প্রত্যাশা।কেননা,ভবিষ্যৎ বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী রাজনীতির কান্ডারী একমাত্র তারেক রহমানই এবং বাংলাদেশকে বর্তমান শতাব্দীতে নেতৃত্ব দিয়ে আরাধ্য লক্ষ্যস্হলের দিকে এগিয়ে নি্বেন তিনিই।

%d bloggers like this: