ঢাকা   ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । বৃহস্পতিবার । সন্ধ্যা ৬:১৮

উন্নয়নে গাত্রদাহ হওয়ায় এখন ভাস্কর্য’র বিরোধিতা করা হচ্ছে (বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার)

দেশের উন্নয়ন দেখে এক শ্রেনীর মানুষের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে,তাই কোন যৌক্তিক কারন ছাড়াই বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মানে বাধা সৃষ্ট্রি করছে। বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) ডা. অমিতাভ সরকার বলেছেন, আজ পদ্মা সেতু নির্মাণ হওয়ায় অনেকের গাত্রদাহ্ শুরু হয়েছে। আমরা জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুকে কতটা ভালবাসী আমাদের স্বঃফূর্তভাবে আজ মাঠে নেমে আসার মাধ্যমে প্রমান করেছে। এখানে যারা আজ বিরোধীতা করছেন তাদেরকে আইন ও বিচারের আওতায় আনা হবে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় নতুন করে বিরোধী জঙ্গি গোষ্ঠিকে মাথা সোজা করে দাঁড়াতে দেয়া হবে না। আজ শনিবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন মঞ্চে “জাতীর পিতার সম্মান রাখবো আমরা অম্লান” এই শ্লোগান নিয়ে বরিশাল বিভাগ ও জেলার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বর্ক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
এসময় আরো বক্তব্য রাখেন- বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ মোঃ রফিকুল ইসলাম, বরিশাল বিভাগীয় স্পেশাল জজ মোঃ মহসিনুল হক, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান, বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম, জেলা সিভিল সার্জণ ডাঃ মনোয়ার হোসেন, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ড. নুরুল আলম, বিভাগীয় তথ্য কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পরিচালক প্রফেসর মোয়াজ্জেম হোসেন । অনুষ্ঠানে স্বগত বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক এস.এম অজিয়র রহমান। এরপূর্বে বরিশাল সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গন থেকে বরিশাল বিভাগ ও জেলা, জুডিশিয়াল বিচার বিভাগ, শিক্ষা বিভাগ, স্বাস্থ্য বিভাগসহ সর্বস্তরের সকল সরকারী কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের ব্যানার নিয়ে এক বিশাল র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন মঞ্চে এসে শেষ হয়। এদিকে অনুষ্ঠান উপলক্ষে সার্কিট হাউজ এলাকা থেকে টাউন হল অনুষ্ঠানস্থল পর্যন্ত গোয়েন্দা ডিবি পুলিশ, সিটি এসবি ও পোষাকী আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের ব্যাপক নিরাপত্তার দায়ীত্ব পালনের জন্য মোতায়েন করা হয়।

%d bloggers like this: