ঢাকা   ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । মঙ্গলবার । সকাল ১১:৩০

ইউপি নির্বাচন, মেহেন্দিগঞ্জে নৌকার দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে সাংসদ পংকজ নাথ’র মিথ্যাচার’র অভিযোগ

অনলাইন ডেস্কঃ  মেহেন্দিগঞ্জের উলানিয়া ইউপি নির্বাচনে নৌকার দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে সাংসদ পংকজ নাথ’র মিথ্যাচার, সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তব্য ও নৌকার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অবস্থান নেওয়ায় হতাশ প্রার্থীসহ ভোটাররা। বরাবরই নৌকা বিরোধী পংকজ নাথ এমপি। এবারও নৌকা ডুবানোর জন্য প্রপাগান্ডা চালিয়ে যাচ্ছেন। এমনটাই অভিযোগ ভুক্তভুগী নেতাকর্মীদের। অভিযোগকারী স্থানীয় আ’লীগ নেতাকর্মীরা বলেন, তিনি মেহেন্দিগঞ্জের দীর্ঘদিনের ত্যাগী ও পরিক্ষিত নেতাকর্মীদের মামলা হামলা করে এলাকা ছাড়া করেছেন। গত ইউপি নির্বাচনে নৌকার ২ কর্মীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। দুই উপজেলা আ’লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৮ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী দিয়ে নৌকা ডুবানো পংকজ নাথ এখন উঠেপড়ে লেগেছে উলানিয়া ইউনিয়নের আ’লীগের মনোনীত প্রার্থীকে হারানোর জন্য। গত শনিবার সন্ধ্যায় মেহেন্দিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন দেবনাথ’র শোকসভার অন্তরালে নৌকার ২ প্রার্থী, উপজেলা, জেলা ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের তীব্র সমালোচনা করেন। এমনকি বরিশাল জেলা পুলিশ সুপারকেও দুষলেন তিনি। পুলিশ সুপারের সমালোচনা করে এমপি বলেন, নির্বাচনে বিএনপি জামায়াতকে নিরাপত্তা দিতে দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়নের লালগঞ্জ এলাকায় পুলিশ ক্যাম্প করেছে । এছাড়াও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এাডঃ তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস’র সমালোচনা করে নৌকার প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহারের ব্যবস্থা করতে বলেন। নৌকার প্রার্থীদের ২৩ তারিখে মধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাহারের আল্টিমেটাম দেন তিনি। এছাড়াও নৌকার প্রার্থীর নামে খুন, ধর্ষন, ডাকাতির অভিযোগ করেন। প্রায়ত এমপি মহিউদ্দিন আহমেদকে নিয়েও নানা বিতর্কমুলক বক্তব্য দিয়েছেন। কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের অনেক নেতাকেও ধূয়ে দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের সমর্থন দিতে বলেন তার অনুসারীদের।তার অনুসারী উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম ভুলু আচরনবিধি লঙ্ঘন করে প্রকাশ্যে ভোট চাইছেন বিদ্রোহী দুই প্রার্থীর পক্ষে। সাংসদ পংকজ নাথ নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মিথ্যাচার করার ভিডিও এসেছে সংবাদ কর্মীদের কাছেও।আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নুরুল ইসলাম জামাল মোল্লা বলেন, নৌকার গণজোয়ার আর জনসমর্থন দেখে ‘সাংসদ পংকজ নাথ অনেককেই সরাসরি ডেকে নিয়ে নৌকায় ভোট না দেয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। হুমকি দিয়ে বলছেন, এলাকায় থাকতে পারবে না, চাকরি থাকবে না।’ তিনি বলেন, এভাবে তিনি আচরনবিধি লঙ্ঘন করছেন আবার নৌকার বিরোধীতাও করছেন। অথচ তিনি নিজেও নৌকা প্রতীক নিয়েই এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। বিষয়টি তিনি সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও জেলা আওয়ামী লীগকেও অবহিত করেছেন।এর আগেও আওয়ামীলীগ সভাপতি দেশনেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত ৮ প্রার্থীকে পরাজিত করে পংকজ নাথ। উলানিয়া উত্তরের নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী আনুমানিক ২০১৭-১৮ সালে মেঘনা নদীতে ডাকাতিকালে নৌ পুলিশ তার সঙ্গপাঙ্গদের ধরলেও তিনি পালিয়ে যান, পরবর্তীতে তাকে আসামি করে থানায় একটি চাঁদাবাজী মামলা করেন নৌ পুলিশ বাদী হয়ে। এছাড়াও বিএনপির পরিবারের নুরুল ইসলাম মিঠু চৌধুরী তিনি স্বেচ্ছাসেবকলীগের ইউনিয়ন সভাপতি, তাকে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে রেখে তার পক্ষেই প্রচার-প্রচারনাতেও নামছেন সাংসদ’র অনুসারীরা।
এতে সংগঠন ভালো নেতৃত্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। মূলত, নির্বাচনী এলাকায় একক নেতৃত্ব ধরে রাখতেই পংকজ নাথ এমনটা করছে।

আচরণবিধি লঙ্গনের বিষয়ে উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম ভুলু বলেন, পংকজ নাথ যা বলেছে তা নির্বাচনী এলাকার বাহিরে বলেছে আর এখনও নির্বাচনী প্রতিক বরাদ্দ হয়নি অতএব নির্বাচনী আচারনবিধি লঙ্গন এর প্রশ্নই আসে না। তিনি আরো বলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তালুকদার মো:ইউনুস নমিনেশন ব্যানিজ্য করেছেন। এবিষয়ে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তালুকদার মো:ইউনুস বলেন আমি মনোনয়ন দেয়ার কে? মনোনয়ন দিয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনা। পংকজ-খোরশেদ’র নৌকা দেখলেই ঘা জ্বলে ।

%d bloggers like this: