ঢাকা   ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ । শনিবার । সকাল ৯:৩৭

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ চরমোনাইয়ের মাহফিল

বরিশাল কীর্তনখোলা নদীর তীরবর্তী চরমোনাই পীরের ৩ দিন ব্যাপি বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিল শেষ হয়েছে। আজ সোমবার(৩০ নভেম্বর) সকালে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মাহফিলের সমাপ্তি হয়। আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি, মুক্তি ও উন্নতি, করোনা মহামারি থেকে বিশ্ববাসীকে হেফাজত এবং করোনা ভাইসরাসে মৃতদের রুহের মাগফিরাত কামনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে বরিশাল চরমোনাই দরবার শরিফের বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল। সকাল ৯ টায় শুরু হওয়া ৩০ মিনিট স্থায়ী আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম। মাহফিলের মাঠ উপচে আশপাশের বাড়ির বাগান, আঙিনা, নদীর পাড়সহ বিভিন্ন স্থানে কয়েক লাখ মুসল্লি মোনাজাতে অংশ নেন। মোনাজাতের আগে ফজরের নামাজের পর শেষ বয়ানে চরমোনাই পীর বলেন, আল্লাহবিমুখ হলে মানুষের মধ্যে মানবতা থাকে না। তারা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। তাই আমাদের সবার মধ্যে আল্লাহভীতি এবং আল্লাহ ও রাসুলের (সা.) প্রতি পূর্ণ আনুগত্য থাকতে হবে। তিনি আরও বলেন, আল্লাহ ও তার রাসুল মনোনীত ব্যতীত অন্য কোন তন্ত্র-মন্ত্র কখনোই গ্রহণ করা যাবে না। যারা আল্লাহ ও তার রাসুলের আদর্শ ব্যতীত অন্য আদর্শ গ্রহণ করে তারা প্রথভ্রষ্ট। আয়োজকরা জানান, গত শুক্রবার শুরু হওয়া তিন দিনের মাহফিলে মূল বয়ান হয় সাতটি। তার মধ্যে পীর মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পাঁচটি ও মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম করেন দুটি বয়ান। মোনাজাত শেষে আগত মুসুল্লিরা শত শত বাস, লঞ্চ ও ট্রলার যোগে নিজ গন্তব্যের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। চলতি বছর চরমোনাই এলাকায় ২টি মাঠজুড়ে মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। নদীর বিস্তৃর্ণ এলাকা, মাঠের আশপাশের বাগান, ঘড়বাড়ির আঙিনাসহ সবখানে বিপুলসংখ্যক মুসল্লিদের উপস্থিতিতে তিল ধারণে ঠাঁই ছিল না।

%d bloggers like this: